যেমন হবে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান

0

মাঠে নামার অপেক্ষায় ৩২ দল। গ্যালারি ও টেলিভিশনে চোখ রাখবেন শত কোটি মানুষ। খেলায় দিন শেষে জয়-পরাজয়টাই মূল বিষয়। তবে বিশ্বকাপের মতো আসরগুলিতে জয়-পরাজয় ছাড়াও অনেক বিষয়ে মানুষের প্রত্যাশা থাকে। এই যেমন উদ্বোধনী, সমাপনী অনুষ্ঠান বা ফুটবলের মসলাদার খবর। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে কি কি থাকবে তা নিয়ে জানার আগ্রহ আছে অনেকের। কোন কোন সেলিব্রেটি মঞ্চে পারফর্ম করবেন সেটা জানতে চান বিনোদনপ্রেমীরা। এসব অনুষ্ঠান মনের মতো না হলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আয়োজক দেশের মুন্ডুপাত করেন তারা।

বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মহড়া। ছবি ফিফার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট

এবার কোটি কোটি মানুষ টেলিভিশনের সামনে বসে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান দেখবেন। নাচ-গান আর বিনোদনের পসরা সাজিয়ে নিজেদের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্য বিশ্ববাসীর সামনে তুলে ধরবে আয়োজক দেশ রাশিয়া। রাজধানী মস্কোর লুঝনিকি স্টেডিয়ামে বসবে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান।মাঠে বসে প্রায় ৮০ হাজারের বেশি মানুষ এই অনুষ্ঠান উপভোগ করবেন। বাংলাদেশ সময় রাত নয়টায় শুরু হবে ফুটবল বিশ্বের সবচেয়ে বড় এই মিলনমেলা। বাংলাদেশে সরাসরি দেখাবে বিটিভি, মাছরাঙা ও নাগরিক টিভি।

বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মহড়া। ছবি ফিফার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে দর্শকদের গানে মাতাবেন ৯০ এর দশকের জনপ্রিয় বিট্রিশ পপশিল্পী রবি উইলিয়ামস ও রাশিয়ান শিল্পী আইদা গারিফুলিনা। এছাড়া উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ চমক হিসেবে থাকবেন ফেনোমেনন খ্যাত দুবার বিশ্বকাপজয়ী তারকা রোনালদো। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ‘লাইভ ইট আপ’ শিরোনামের থিম সংটি গাইবেন নিকি জ্যাম, ইরা ইস্ত্রোফি। তাদের সঙ্গে গলা মেলাবেন হলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা উইল স্মিথ। এছাড়া প্রায় ৫০০ নৃত্যশিল্পী ও ক্রীড়াবিদ থাকবেন উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে। যাঁরা বিভিন্ন কসরতের মাধ্যমে রাশিয়ার ঐতিহ্য তুলে ধরবেন।

বিশ্বকাপ ফুটবলের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের মহড়া। ছবি ফিফার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট

বিশ্বকাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান উপলক্ষে রাজধানী মস্কোর রেড স্কোয়ারে অনুষ্ঠিত হবে কনসার্ট। প্ল্যাসিডো ডোমিঙ্গুয়েজ ও জুয়ান দিয়েগো ফ্লোর্সের মতো তারকারা পারফর্ম করবেন এখানে। আগামী ১৪ জুন থেকে রাশিয়ার ১১ শহরের ১২টি ভেন্যুতে শুরু হবে এবারের বিশ্বকাপ আয়োজন। ৩২ দলের এই মহামিলন শেষ হবে আগামী ১৫ জুলাই।